মর্মান্তিক! কৃষ্ণনগরে জাতীয় সড়ক অবরোধের জেরে প্রাণ গেল সাত বছরের শিশুর

নদীয়া নিউজ ২৪ ডিজিটাল: অবরোধের ফলে চিকিৎসা না পেয়ে অ্যাম্বুলেন্সে মৃত্যু সাত বছরের শিশুর। কৃষ্ণনগরে জগদ্ধাত্রী পুজোয় শোভাযাত্রা এবং যাবতীয় নিয়ম মেনে অন্যান্য বছরের মতোই বিসর্জন করতে দেওয়ার দাবিতে মঙ্গলবার সন্ধে থেকেই কৃষ্ণনগর শহরের বিভিন্ন জায়গায় পথ অবরোধ শুরু করেন পুজো উদ্যোক্তা এবং স্থানীয় বাসিন্দাদের একাংশ৷ সেই অবরোধের ফলে সাড়ে চার ঘন্টা আটকে থেকে অ্যাম্বুলেন্স এর ভেতরেই মৃত্যু হল এক শিশুর। মৃত শিশুর নাম সাকিবুল সেখ। দৃষ্টান্ত রয়ে গেল কৃষ্ণনগরের জগদ্ধাত্রী পুজোর এই অবরোধের। রাত ১১ টা থেকে সাড়ে তিনটে পর্যন্ত ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কে অবরোধের ফলে দীর্ঘ যানজট সৃষ্টি হয়। মালদহ থেকে কলকাতায় চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল শিশুটিকে। খাট থেকে পড়ে গিয়ে গুরুতর আহত শিশুটিকে কলকাতায় নিয়ে আসার পরামর্শ দিয়েছিলেন মালদহের চিকিৎসকরা৷ কিন্তু কৃষ্ণনগরের কাছে এসে আটকে যায় অ্যাম্বুল্যান্স৷ অবরোধের ফলে চিকিৎসা না পেয়ে অ্যাম্বুলেন্সে মৃত্যু হল শিশুর। ঘটনায় অনিচ্ছাকৃত খুনের মামলা দায়ের করে পুলিশ ইতিমধ্যেই পাঁচ জনকে গ্রেপ্তার করেছে।

পুলিশের পক্ষ থেকে স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয়, করোনা অতিমারি নিয়ন্ত্রণে হাইকোর্টের নির্দেশ থাকায় শোভাযাত্রা করে অন্যান্য বছরের মতো বিসর্জনের অনুমতি দেওয়া সম্ভব নয়৷ দাবি পূরণ না হওয়ায় রাত এগারোটা নাগাদ কৃষ্ণনগরের পিডব্লিউডি মোড়ে ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়ক অবরোধ শুরু হয়৷ পুলিশ কড়া হতেই ছত্রভঙ্গ হয়ে যায় বাকি অবরোধকারীরা৷ ধৃত পাঁচ জনের বিরুদ্ধে অনিচ্ছাকৃত খুনের মামলা দায়ের করে পুলিশ৷ প্রশ্ন উঠছে, আরও আগেই কেন অবরোধকারীদের সরাতে কড়া মনোভাব দেখালো না পুলিশ?

Leave a Reply

Your email address will not be published.