Abhisekh in Tripura: দিন বদল করেও মিলল না অনুমতি, ট্যুইটে ত্রিপুরা বিজেপিকে খোঁচা অভিষেকের

নদীয়া নিউজ ২৪ ডিজিটাল: ত্রিপুরাকে যে তৃনমুল কংগ্রেস পাখির চোখ করে রাখছে,তা বার বার প্রমান করছে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় সহ আরও অন্যান্য শীর্ষস্থানীয় নেতারা। চলতি মাসের ১৫ তারিখ ত্রিপুরার আগরতলায় তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের পদযাত্রা ছিল। সেই পদযাত্রায় নিষেধাজ্ঞা জারি করল ত্রিপুরা পুলিশ। প্রশাসনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে যে, ওই একই দিনে একই রুটে, একই সময়ে অন্য একটি দলের কর্মসূচি রয়েছে। তাই নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

এরপরই তৃণমূলের তরফে জানানো হয়েছিল ‘অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে রোখা যাবে না।’ টুইট করে তৃণমূলের রাজ্য সাধারণ সম্পাদক কুণাল ঘোষ জানিয়েছিলেন, ১৫ সেপ্টেম্বরের পরিবর্তে ১৬ তারিখ আগরতলায় একই রুটে হবে পদযাত্রা। তিনি আরও লেখেন, ‘ইতিমধ্যেই এই মর্মে চিঠি জমা দেওয়া হয়েছে।

কিন্তু এতেও বাধা পেল অভিষেকরা। ১৬ সেপ্টেম্বরেও ত্রিপুরায় (TMC in Tripura) পদযাত্রা করার অনুমতি পেল না তৃণমূল কংগ্রেস। বিশ্বকর্মা পুজোর ঠিক আগের দিন নিরাপত্তা নিয়ে সমস্যা তৈরি হতে পারে। এই যুক্তি দেখিয়েই তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Abhishek Banerjee) এই মিছিলের অনুমতি দেওয়া হল না।

বারংবার অভিষেকের পদযাত্রায় বাধা প্রদান করার জন্য বিদ্রুপের ভাষায় ত্রিপুরা বিজেপিকে আক্রমণ করেন অভিষেক ট্যুইটারে লেখেন, “বিজেপি ভয় পাচ্ছে। তাই বিপ্লব দেব সর্বশক্তি দিয়ে আমাকে ত্রিপুরায় যাওয়া থেকে আটকাতে চাইছে। কিন্তু এভাবে আমাকে আটকানো যাবে না। সত্যিটা সামনে আসবেই।” এরপরই সিনেমার সংলাপ দিয়েই তাঁর খোঁচা, “ইয়ে ডর হামে আচ্ছা লাগা।”

উল্লেখ্য, বাংলায় তৃতীয়বারের জন্য ক্ষমতা দখল করার পর তৃণমূল কংগ্রেস জাতীয় স্তরে তাঁদের সংগঠন বাড়াতে এবং মজবুত করতে ঝাঁপিয়ে পড়েছে। লক্ষ্য ২০২৪-এর লোকসভা নির্বাচনে বিজেপিকে কেন্দ্রের ক্ষমতা থেকে সরানো। তবে, তার আগে যেসব রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচন রয়েছে সেখানেও নিজেদের সংগঠন মজবুত করতে চাইছে তৃণমূল। সেই লক্ষ্যে এই মুহূর্তে তৃণমূল কংগ্রেসের পাখির চোখ ত্রিপুরা। এই রাজ্যে নিজেদের সংগঠন আরও মজবুত করতে এবং ত্রিপুরার আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপিশাসিত বিপ্লব দেবের সরকারকে ক্ষমতাচ্যুত করার লক্ষ্যে ইতিমধ্যেই মাঠে নেমে পড়েছে তৃণমূল কংগ্রেস।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *