Kanta Prasad Attempts Suicide: ঋণের দায়ে জর্জরিত হয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন ‘বাবা কা ধাবার’ ৮০ বছরের বৃদ্ধ কান্ত প্রসাদ

নদীয়া নিউজ ২৪ ডিজিটাল: আত্মহত্যার চেষ্টা করেন সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া বাবা কা ধাবার মালিক কান্ত প্রসাদ । বর্তমানে দিল্লির সফদরগঞ্জ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন তিনি । দেনায় জর্জরিত হয়ে ৮০ বছর বয়সে জীবন শেষ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন কান্তা প্রসাদ (Kanta Prasad)। কান্তা প্রসাদের স্ত্রীর কথায়,দক্ষিণ দিল্লিতে নতুন রেস্তোরাঁর ভাড়া মাসে ১ লক্ষ টাকা তিনি কীভাবে মেটাবেন, সেই চিন্তাতেই শেষ হয়ে যাচ্ছিলেন।  তার জেরেই কান্তা প্রসাদ ঘুমের ওষুধ খান।

ইউটিউবার গৌরব ওয়াসান ‘বাবা কা ধাবা’ নিয়ে একটি ভিডিয়ো বানানোর পর রাতারাতি পরিচিতি পান তিনি। সেই সময় তাঁর খুব কম বিক্রি হত। কিন্তু সেই ভিডিয়োটি ভাইরাল হওয়ার পর থেকে হঠাৎ বিক্রি বেড়ে যায় তাঁর। এমনকি আরও একটি রেস্তোরাঁও খোলা হয় তাঁর নামে। কিন্তু হঠাৎই গৌরবের ওয়াসানের নামে টাকা তছরূপ ও প্রতারণার অভিযোগ আনেন কান্তা প্রসাদ। ঠিক সেই সময় লকডাউনের জেরে তাঁর বিক্রি একেবারে কমে যায়। এমনকি নতুন রেস্তোরাঁটিও বন্ধ হয়ে যায়।

রেস্তোরাঁ খোলার পর মাসে ৪০ হাজারের বেশি রোজগার হচ্ছিল না কান্তা প্রসাদের। তার জেরে বেশ কিছুদিন ধরে অবসাদে ভুগতে শুরু করেন কান্তা। ঘরের ১ লক্ষ ভাড়া কীভাবে মেটাবেন, তা বুঝে উঠতে পারছিলেন না কান্তা। রেস্তোরাঁর গ্যাস, বাসনপত্র বিক্রি করেও, টাকা জোগাড় হচ্ছিল না। তার জেরে অবসাদগ্রস্থ হয়েই কান্তা প্রসাদ জীবন শেষ করে দেওয়ার মতো পদক্ষেপ করেন বলে জানান তাঁর স্ত্রী।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.