মেঘলা আকাশে পাইলটের কিছু ভুল সিদ্ধান্তের কারনেই ভেঙে পড়েছিল বিপিন রাওয়াতের কপ্টার, তদন্তে বেরিয়ে এল তথ্য

নদীয়া নিউজ ২৪ ডিজিটাল: দেশের প্রথম সিডিএস জেনারেল বিপিন রাওয়াতের মৃত্যু কোনো অন্তর্ঘাত নাকি নিছকই কোনো দুর্ঘটনা! তা নিয়ে নানা বিতর্কের পর অবশেষে বিশেষ তদন্তকারী দলের রিপোর্টে বেরিয়ে এল আসল তথ্য।

বায়ুসেনার অধীনে যে তদন্তকারী দল রাওয়াতের দুর্ঘটনার কারণ খুঁজছিলেন, তাদের রিপোর্টে জানানো হয়েছে পাইলটের গাফিলতির কারণেই হেলিকপ্টারটি ভেঙে পড়েছিল এবং জেনারেল বিপিন রাওয়াত সহ ১৪ জনেরই মৃত্যু হয়েছিল। সমস্ত প্রত্যক্ষদর্শীদের জিজ্ঞাসাবাদ এবং ফ্লাইট ডেটা রেকর্ডার ও ককপিট ভয়েস রেকর্ডার পরীক্ষা করে তদন্তকারী দলের তরফে বলা হয়েছে, “তামিলনাড়ুর কুন্নুর উপত্যকায় হঠাৎ আবহাওয়ার পরিবর্তনের ফলেই যাত্রা পথে ঘন মেঘের মাঝে ঢুকে পড়ে হেলিকপ্টারটি। এরপরই নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলে পাইলট এবং  “কন্ট্রোলড ফ্লাইট ইনটু টেরিন”-র ফলে কপ্টারটি ভেঙে পড়ে।”

রিপোর্টে তদন্তকারীরা কোনও রকম অন্তর্ঘাত বা কপ্টার দেখভালের অভাবের মতো বিষয়গুলিকে নাকচ করছে। কেবলমাত্র আবহাওয়া ও চালকের দিগভ্রান্ত হওয়াই দুর্ঘটনার কারণ। সেই কারণে তদন্তকারীরা বেশ কয়েকটি জিনিস চিহ্নিত করেছেন, সেগুলি আপাতত খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, গত বছর শেষের দিকে তামিলনাড়ুর সুলুর থেকে ওয়েলিংটন যাওয়ার পথেই মাঝ আকাশ থেকে ভেঙে পড়ল প্রতিরক্ষা প্রধান বিপিন রাওয়াত(Bipin Rawat)-র হেলিকপ্টার (Army Chopper Crash)। দুর্ঘটনায় সিডিএস জেনারেল, তাঁর স্ত্রী সহ মোট ১৩ জনের মৃত্যু হয়। দুর্ঘটনা থেকে একমাত্র বেঁচে ফিরেছিলেন গ্রুপ ক্যাপ্টেন বরুণ সিং। কিন্তু তাঁরও মৃত্যু হয় এক সপ্তাহ পর। প্রায় একমাস তদন্ত  (Investigation) চলার পর অবশেষে জানা গেল ঠিক কী কারণে ভেঙে পড়েছিল প্রতিরক্ষা প্রধান বিপিন রাওয়াতের হেলিকপ্টার।

Leave a Reply

Your email address will not be published.