west Bengal Bandh: রাজ্যজুড়ে বিজেপির ১২ ঘন্টা বনধ! উল্টে বনধে সমস্ত কিছু খুলে রাখার নির্দেশ নবান্নের

নদীয়া নিউজ ২৪ ডিজিটাল: রবিবারই মিটেছে রাজ্যের ১০৮ পুরসভার পুরভোট। পুরভোট নির্বাচনে অশান্তি ও শাসকদলের সন্ত্রাসের অভিযোগে সোমবার, অর্থাৎ আজ সকাল ৬টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা, ১২ ঘণ্টা বাংলা বনধের ডাক দিয়েছে রাজ্যের বিরোধী দল বিজেপি(BJP)। ঠিক তার উল্টো পথে হেটে রবিবারই নবান্ন তরফে একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে বনধে খোলা থাকছে স্কুল,কলেজ, খোলা থাকবে সমস্ত সরকারি ও বেসরকারি অফিস। বন্ধ করা যাবে না দোকানপাট। নবান্নের তরফে স্পষ্ট ঘোষণা, সাধারণ মানুষকে জোরজবরদস্তি বন্‌ধ মানতে বাধ্য করা হলে কড়া পদক্ষেপ করা হবে।

একইসাথে নবান্ন জানিয়েছে, সোমবার কোনও সরকারি কর্মী উপযুক্ত কারণ ছাড়া অনুপস্থিত থাকলে কাটা যাবে কর্মদিবস থেকে একদিন। এমনকি সমস্যা এড়াতে রাস্তায় মোতায়েন থাকবে পুলিশ বাহিনী। রাজ্য সরকারের স্পষ্ট বার্তা, বন্‌ধ সফল করতে গিয়ে কোনও ভাবে সরকারি (কেন্দ্র ও রাজ্য দুইই) ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠান, কারখানা, বাজার, দোকান খোলার ক্ষেত্রে যদি বাধা দেওয়া হয় এবং স্বাভাবিক জনজীবন ব্যাহত হয়, তা হলে কড়া পদক্ষেপ করা হবে।

উল্লেখ্য, রবিবার সকাল থেকেই দলের প্রার্থীকে মারধর, এজেন্টকে বের করে দেওয়া, ছাপ্পা ভোট, একাধিক পুর এলাকায় ইভিএম ভাঙচুর বোমাবাজি ইত্যাদি নিয়ে কমিশন ও প্রশাসনের কাছে অভিযোগ জানিয়ে সরব হয়েছিল BJP। তার পরই ১২ ঘন্টা বনধের ডাক দিয়েছিল রাজ্য বিজেপি।দলের সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি দিলীপ ঘোষের কথায়, ‘‘অবাধে ভোট লুঠ হবে, কেউ ভাবেনি। আবার নির্বাচন হওয়া উচিত।” ব্যারাকপুরের বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিংহ বলেন, “নির্বাচন কমিশনারকে গ্ৰেফতার উচিত। এই সরকারকে রেখে কোনও নির্বাচন সম্ভব নয়।’’

Leave a Reply

Your email address will not be published.