বাতিল মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা, ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

নদীয়া নিউজ ২৪ ডিজিটাল: এবছর হচ্ছে না মাধ্যমিক-উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা। ‘কীভাবে মূল্যায়ন, তা ৭দিনের মধ্যে জানানো হবে’,মাধ্যমিক-উচ্চমাধ্যমিক নিয়ে জানিয়ে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি জানান, পরীক্ষা না হলে অনেকের সমস্যা হয়। কোভিড অতিমারী চলছে। মাধ্যমিক, উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা বাতিল করলাম। তিনি জানান, ৩৪ হাজার মতামত এসেছে। মানুষের মতামতকে গুরুত্ব দিয়ে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হল।

কোন পথে মাধ্যমিক-উচ্চমাধ্যমিক? জনমত যাচাইয়ে বিশেষজ্ঞ কমিটি গড়েছিল স্কুল শিক্ষা দফতর। সাধারণ মানুষ, অভিভাবক ও পড়ুয়াদের মতামত জানতে তিনটি ইমেল আইডিও দিয়েছিল এই কমিটি। সোমবার দুপুর ২টোর মধ্যে সেখানে মতামত জানাতে বলা হয়েছিল।

৮৩ শতাংশ উচ্চ মাধ্যমিক না করার পক্ষে। মাধ্যমিকও চাইছেন না অধিকাংশ। তবে পড়ুয়াদের যাতে কোনও অসুবিধা না হয় তা দেখারও নির্দেশ দেন তিনি। একইসঙ্গে তিনি বলেন, মাধ্যমিক-উচ্চমাধ্যমিক ও সিবিএসই-এর মূল্যায়ণ যেন একইসঙ্গে হয়।

ইতিমধ্যেই ৬ সদস্যের বিশেষজ্ঞ কমিটির কাঁধে জোড়া পরীক্ষার বিষয়ে পুনর্বিবেচনার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। সূত্রের খবর, করোনা আবহে একুশ লক্ষ ছাত্রছাত্রীর পরীক্ষা নেওয়া সম্ভব নয় বলে, তা বাতিলের পক্ষে সায় দিয়েছেন তাঁরা। সূত্রের খবর, কারণ হিসেবে কমিটির তরফে বলা হয়, আসতে পারে করোনার তৃতীয় ঢেউ।তাতে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা আছে শিশুদের।যে বয়সের ছাত্রছাত্রীরা মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা দেবে তাঁদের বয়স ১৫ থেকে ১৮ বছর। যাঁদের কারও ভ্যাকসিনেশন হয়নি।তবে সরকারের এই উদ্যোগের সমালোচনা করেছে বেঙ্গল টিচার্স অ্যান্ড এমপ্লয়িজ অ্যাসোসিয়েশন। তাদের অভিযোগ, উপেক্ষা করা হচ্ছে শিক্ষক সমাজের মতামতকেই।

Leave a Reply

Your email address will not be published.