আশা কর্মীদের পরিবারদের ভ্যাকসিন দেওয়ার দাবিতে সি এম ও এইচ অফিসের সামনে বিক্ষোভ

নদীয়া: গ্রামীণ স্বাস্থ্য পরিষেবায় বাড়ি বাড়ি ঘুরে খোঁজখবর নেওয়া আসা কর্মীরাই আজ ব্রাত্য ভ্যাকসিন প্রাপ্তি থেকে। আশা কর্মীদের পরিবারদের ভ্যাকসিন দেওয়ার দাবিতে সি এম ও এইচ অফিসের সামনে বিক্ষোভ দেখায় নদীয়াজেলা আশা কর্মী ইউনিয়ন।

নদীয়া জেলার সভানেত্রী অপর্ণা গুহ জানান, মূল মাইনে সাড়ে চার হাজার টাকার বিনিময়ে ২৪ ঘন্টা কাজের চাপ, স্বাস্থ্যমন্ত্রী কর্তৃক অর্ডার না থাকা সত্বেও এই কোভিড পরিস্থিতিতে বিশেষ কিছু বাড়তি কাজের দায়িত্ব নিতে হয়েছে আমাদের । তিনি আরও বলেন,’ কোভিড আক্রান্ত মৃতের পরিবারের উদ্দেশ্যে সরকারিভাবে ঘোষিত এক লক্ষ টাকা কেউই পাননি রাজ্যে,শুধুমাত্র দক্ষিণ ২৪ পরগনার দু-একজন ছাড়া ।

দুরবস্থা কথা জানাতে গেলে তা ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ গুরুত্ব দেন না এমনকি কোনো কোনো ক্ষেত্রে অপমানসূচক কথাও বলে থাকেন! তাই ২৪ তারিখ অর্থাৎ আজ সমস্ত সিএমওএইচ অফিসে একটি ডেপুটেশন দেওয়ার কথা হয়েছিলো সমস্ত জেলায় একযোগে। কিন্তু ঝড় বৃষ্টির মধ্যে কিভাবে এই ডেপুটেশনে দেওয়া হবে তা নিয়ে চিন্তিত আশা কর্মী ইউনিয়ন । তবে এ মাসের মধ্যেই রাজ্যের সমস্ত আশা কর্মীরা কর্ম বিরতির সাথেই বিক্ষোভ করবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.