Laksmir Bhandar: ফের রাজ্যে চালু হচ্ছে ‘দুয়ারে সরকার’ প্রকল্প, ১ সেপ্টেম্বর থেকে আবেদন করা যাবে ‘লক্ষীর ভান্ডার’ প্রকল্পে

নদীয়া নিউজ ২৪ ডিজিটাল: আগামী ১ সেপ্টেম্বর থেকে রাজ্যে চালু হচ্ছে ‘লক্ষ্মীর ভাণ্ডার’ (Laksmir Bhandar) প্রকল্প। সেখানে সেখানে তপশীলী জাতির মহিলারা মাসে ১ হাজার, সাধারণ মহিলারা মাসে ৫০০ টাকা করে পাবেন। বৃহস্পতিবার এই কথা জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এদিন মুখ্যমন্ত্রী জানান, “আগামী ১ সেপ্টেম্বর থেকেই ‘লক্ষ্মীর ভাণ্ডার’ প্রকল্পের সুবিধা পাওয়া যাবে। কিন্তু তার আগে আবেদনপত্র জমা নিতে হবে। আগামী ১৬ আগস্ট থেকে ১৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত আবারও রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে ‘দুয়ারে সরকার’ শিবির চলবে।” সেই দুয়ারে সরকার শিবিরে গিয়ে আবেদন জমা দেওয়া যাবে। এমনকি ল ‘স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড’, ‘স্বাস্থ্যসাথী’ প্রকল্পে নাম নথিভুক্তকরণ, জাতি শংসাপত্র-সহ একাধিক প্রকল্পের সুবিধা পাওয়ার জন্য আগ্রহীরা আবেদনপত্র জমা দিতে পারবেন।

কিভাবে আবেদন করবেন? কারা কারা পাবেন এই সুবিধা?

মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী, লক্ষ্মীর ভাণ্ডার’ প্রকল্পের মাধ্যমে তফসিলি ও আদিবাসী মহিলাদের মাসে ১০০০ টাকা এবং জেনারেল বা সাধারণ মহিলারা মাসে ৫০০ টাকা করে পাবেন। ‘ দুয়ারে সরকার’ শিবিরে গিয়ে আবেদন করা যাবে। যাঁদের স্বাস্থ্যসাথী কার্ড আছে তা দেখালেও হবে। তবে তাঁদের ‘দুয়ারে সরকার’ শিবিরে একটি দরখাস্ত নিয়ে যেতে হবে। ন্যূনতম ২৫ থেকে ৬০ বছর বয়সি প্রত্যেক মহিলা এই প্রকল্পের সুবিধা পাবেন। তবে যাঁরা পেনশনভোগী তাঁরা ‘লক্ষ্মীর ভাণ্ডার’ প্রকল্পের সুবিধা পাবেন না। 

উল্লেখ্য একুশের নির্বাচন প্রচারে মুখ্যমন্ত্রীর জনসাধারণকে দেওয়া প্রতিশ্রুতি গুলির মধ্যে একটি এই ‘লক্ষীর ভান্ডার’। একইসঙ্গে নির্বাচনের আগে ‘দুয়ারে সরকার’ শিবিরের কথা ঘোষণা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। দুয়ারে সরকার কর্মসূচিতে মোট ১০টি প্রকল্পকে বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া হয়। মাত্র কয়েকদিনের মধ্যে ব্যাপক সাফল্য পেয়েছিল ‘দুয়ারে সরকার’ শিবির। ওয়াকিবহাল মহলের মতে, সেকথা মাথায় রেখেই আবারও ‘দুয়ারে সরকার’ শিবির চালুর সিদ্ধান্ত রাজ্য সরকারের।

Leave a Reply

Your email address will not be published.