নদিয়ায় প্রশাসনিক বৈঠকে বিজেপি বিধায়কদের না ডাকায় বিস্ফোরক মন্তব্য বিজেপি সাংসদ জগন্নাথ সরকারের

শান্তিপুর,নদীয়া: নদিয়ায় মুখ্যমন্ত্রীর প্রশাসনিক বৈঠকে বিজেপি বিধায়কদের না ডাকায় ক্ষুদ্ধ রানাঘাট লোকসভার সাংসদ জগন্নাথ সরকার। মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে বিস্ফোরক মন্তব্য করে জগন্নাথ সরকার বলেন,” স্বভাবসিদ্ধভাবে মুখ্যমন্ত্রী সরকার এবং দলের কোনো পার্থক্য রাখেন না, জনগণ দ্বারা নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের আমন্ত্রণ না করে মূলত জনগণকেই অপমানিত করেছেন তিনি।”

এতেই থেমে থাকেননি জগন্নাথ বাবু। মুখ্যমন্ত্রীকে কটাক্ষ করে তিনি বলেন,” গঙ্গা ভাঙ্গন প্রসঙ্গে তিনি কেন্দ্রীয় সরকারের ঘাড়ে প্রায়শই দোষ চাপিয়ে থাকেন, এদিন ও তা ব্যতিক্রম হয়নি।”

পাশাপাশি সাংসদের প্রশ্ন,” গঙ্গা ভাঙ্গন রোধ করা যদি কেন্দ্রীয় সরকারের দায়িত্ব হয়ে থাকে তাহলে মাঝেমধ্যেই কিছু বালির বস্তা নিয়ে স্থানীয় বিডিও, এসডিও এবং জনপ্রতিনিধিরা দৌড়াদৌড়ি করেন কেন?” আসলে সেখান থেকেও মানুষকে বিভ্রান্ত করে কাটমানি খাওয়ার প্ল্যান করে থাকেন তারা। তিনি দৃঢ়তার সাথে বলেন রাজ্য সরকার গঙ্গা ভাঙ্গন নিয়ে কেন্দ্রের কাছে আবেদন করুক আমি সাংসদ হিসাবে কথা দিচ্ছি তা মঞ্জুর করিয়ে দেওয়ার দায়িত্ব আমার।”

উল্লেখ্য গত ৯ ডিসেম্বর নদিয়ার কৃষ্ণনগরে এক প্রশাসনিক মিটিংয়ে উপস্থিত হন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। জেলা পুলিশ প্রশাসন এবং বিভিন্ন জনপ্রতিনিধিদের সাথে বিভিন্ন উন্নয়নমূলক এবং সমস্যা নিয়ে আলোচনা করতে দেখা যায় তাকে। তবে বিজেপির টিকিটে জয়লাভ করা কোনো বিধায়ককে ওই বৈঠকে ডাকা হয়নি। অথচ জেলার ১৭ টি বিধানসভার মধ্যে ৯টি তেই রয়েছে বিজেপি বিধায়ক। কেন বিজেপি বিধায়কদের ওই বৈঠকে ডাকা হয়নি এই বিষয় নিয়ে মুখ খুললেন রানাঘাট তপশিল কেন্দ্রের সাংসদ জগন্নাথ সরকার।

Leave a Reply

Your email address will not be published.