৪ বছর ধরে প্যারালাইসিস, করোনা টিকা নিয়ে ফিরে পেলেন হাঁটাচলার ক্ষমতা

নদীয়া নিউজ ২৪ ডিজিটাল: করোনা টিকা যেন তার কাছে ভগবানের পাঠানো দূত! বিগত ৪ বছর ধরে যে মানুষটি পক্ষাঘাতে আক্রান্ত। হাঁটাচলা করতে পারেন না। এমনকি যিনি কথা বলতেও পারেন না। চিকিৎসকের পরামর্শ মেনেও যার কোনো লাভ হয়নি। সেই মানুষটি নাকি করোনার টিকা নিয়ে দিব্যি সুস্থ হয়ে উঠেছেন। অবিশ্বাস্য হলেও, সত্যি। ঘটনাটি ঘটেছে ঝাড়খণ্ডের বোকারোর (Bokaro) সালগাদিহ গ্রামে।

ওই গ্রামের দুলারচাঁদ মুন্ডা নামের এক ৫৫ বছর বয়সী ব্যাক্তি ৪ বছর আগে একটি দুর্ঘটনার কবলে পড়ে হাঁটাচলার ক্ষমতা ও বাকশক্তি হারিয়ে ফেলেন। দীর্ঘ চার বছর নানা চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে, বিভিন্ন ওষুধ খেয়েও তার কোনো লাভ হয়নি। এহেন দুলারচাঁদ গত ৪ জানুয়ারি করোনা টিকার প্রথম ডোজ নেন। পরদিন থেকেই তাঁর শরীরে নাকি নানা বাহ্যিক পরিবর্তন চোখে পড়ে সকলের। দেখা যায়, কেটে যাচ্ছে শারীরিক স্থবিরতা। এরপর সকলকে অবাক করে তিনি আবার হাঁটতে শুরু করে দেন বিছানা থেকে নেমে! যা দেখে তাজ্জব সবাই। এও নাকি দেখা গিয়েছে, হারানো কণ্ঠস্বরও ফিরে পেয়েছেন ওই ব্যক্তি।

তবে এই ঘটনায় অবাক গোটা চিকিসকমহল। দুলারচাঁদ ও তাঁর পরিবারের দাবিতে হতবাক চিকিৎসকরাও। বোকারোর সিভিল সার্জন ড. জিতেন্দ্র কুমার,যে দীর্ঘদিন দুলারচাঁদ এর চিকিৎসা করে এসেছেন, তিনি এপ্রসঙ্গে সর্বভারতীয় এক সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলার সময় জানিয়েছেন, “বিষয়টা সত্যিই বিস্ময়কর। তা বলে এটা কোনও অলৌকিক ঘটনা নয়। তিনি পুরো ঘটনাটি খতিয়ে দেখতে একটি মেডিক্যাল টিম গঠনের আরজি জান‌িয়েছেন।”

Leave a Reply

Your email address will not be published.