“জয় শ্রী রাম বললে সস্তায় মিলবে?” জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে পেট্রোল পাম্পে কুণালের প্রশ্ন

নদীয়া নিউজ ২৪ ডিজিটাল: প্রতিনিয়ত জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধিতে রাজ্যজুড়ে প্রতিবাদে সামিল হয়েছে তৃনমুল। প্রতিদিনই রাস্তায় নামছেন তৃণমূলের মন্ত্রী বিধায়করা। রাজ্যের নানা জায়গায় অভিনব প্রতিবাদ মিছিল করতে দেখা যাচ্ছে তৃনমুল নেতা কর্মীদের। কোথাও গ্যাসের ফাঁকা সিলিন্ডার কাঁধে চাপিয়ে, কোথাও আবার ঘোড়ার গাড়িতে চড়ে প্রচার করেছিলেন তৃণমূলের নেতাকর্মীরা। আজও প্রায় প্রতিটি বিধানসভা কেন্দ্রেই কোভিড বিধি মেনেই চলল লাগাতার বিরোধিতা। এই পরিস্থিতিতে সরাসরি পেট্রল পাম্পে গিয়ে অভিনব ভঙ্গিতে BJP সরকারকে আক্রমণ করলেন তৃণমূলের সাধারণ সম্পাদক কুণাল ঘোষ।

রবিবার কাঁকুরগাছিতে একটি কর্মসূচিতে যান কুণাল ঘোষ। হঠাৎই সভাস্থল থেকে বেরিয়ে একটি পেট্রোল পাম্পে হাজির হন তিনি। পেট্রোল পাম্পে পৌঁছে পাম্পকর্মীদের উদ্দেশ্যে কুনাল ঘোষ বলেন,”আমি হিন্দু, জয় শ্রীরাম বলতে রাজি আছি, সেক্ষেত্রে কি একটু সস্তায় পেট্রল দেওয়া যাবে?” স্বাভাবিক ভাবেই এহেন প্রশ্নে হতবাক পাম্পকর্মীরা। উত্তর ‘না’আসার পরই সভামঞ্চ থেকে বিজেপি কর্মীদের খোঁচা মেরে কুনাল ঘোষ বলেন, “তাঁরা জয় শ্রীরাম বললেও সস্তায় পেট্রল, ডিজেল, রান্নার গ্যাস পাবেন না। বিজেপি বরাবর মানুষকে ভুল বুঝিয়েছে। মানুষের পাশে দাঁড়ায়নি।” বিজেপিকে আক্রমণের পাশাপাশি এদিন আমজনতার স্বার্থে রাজ্যের প্রকল্পগুলির কথা তুলে ধরেন তিনি।”

এখানেই শেষ নয়, যতদিন না জ্বালানির দাম কমবে ততদিন পর্যন্ত রাজ্যজুড়ে প্রতিবাদ চালাবে তৃনমুল। এমনটাই জানিয়েছিলেন রাজ্যের পরিষদীয় মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়।পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের অভিযোগ, ‘সেঞ্চুরি পার করেছে পেট্রোল। ডিজেলও সেঞ্চুরির দোরগোড়ায়। রান্নার গ্যাসের দাম আকাশছোঁয়া হাওয়ায় হেঁসেলে আগুন জ্বলছে। কেরোসিনের দামও চড়া। এই ভয়াবহ অবস্থায় দাম নিয়ন্ত্রণের ব্যাপারে হাত গুটিয়ে রয়েছে কেন্দ্র। আমরা আন্দোলনের পথ থেকে সরছি না। এই প্রেক্ষিতে দিলীপ ঘোষ মন্তব্য করে বলেছেন,”আন্দোলন প্রতিবাদ করে জ্বালানির দাম কমানো যাবে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published.