অবশেষে অবসর নিচ্ছে স্বর্ণ পদকপ্রাপ্ত ল্যান্ডমাইন শনাক্তকারী ইঁদুর মাগাওয়া

নিজের কেরিয়ারে এসেছে একের পর এক সাফল্য । নিজের বীরত্বের জন্য স্বর্ণপদকের মতো সম্মাননাও পেয়েছেন । তবে এখন তাকে অবসর নিতে হবে । আপনি কী ভাবছেন? আপনি নিশ্চই ভাবছেন আমরা কোনো এক পেশাদার একজনের জীবনের সাফল্যের কথা বলছি । তাহলে আপনার ভাবনাটি ভুল । আমরা যার জীবনের সাফল্য নিয়ে কথা বলছি সেটি একটি ইঁদুর । হ্যাঁ ,আপনি ঠিকই শুনেছেন । কম্বোডিয়ার এই ইঁদুরটির নাম ‘মাগাওয়া’ । যে কিনা মাটির নিচে পুঁতে রাখা ল্যান্ডমাইন খুঁজে বের করতে দক্ষ । এমনকি তার এই কাজের জন্য তাকে পিএসডিএ-র তরফে স্বর্ণপদকও দেওয়া হয়েছে ।

বিবিসির একটি প্রতিবেদন অনুযায়ী গত ৫ বছরে এই বিশেষ ক্ষমতাসম্পন্ন ইঁদুরটি ৭১ টি স্থলমাইন সহ কয়েক ডজন অবিস্ফোরিত বোমা উদ্ধার করেছে । ভাবলে হয়তো অবাক লাগে । তবে মাগাওয়ার জীবনের এই গল্প হলিউডের কোনো গল্পকে হার মানাবে । সাত বছর বয়সী মাগাওয়ার ওজন ১.২ কেজি । দৈর্ঘ্য ২৮ ইঞ্চি । যার জেরে এটি কোনো প্রকার ল্যান্ডমাইনকে ট্রিগার করে না । বেলজিয়ামের চ্যারিটি অপ্পো নামের একটি সংস্থা থেকে বিশেষ ধরণের প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত এই ইঁদুরটি নিজের কর্মজীবনের ৫ বছর অতিক্রম করেছে কম্বোডিয়ায় । জীবন বাঁচিয়েছে বহু মানুষের । কম্বোডিয়ার মানুষের জীবনে তার এই অবদান থাকলেও শেষমেষ নিজের কর্মজীবন থেকে অবসর নীল ইঁদুরটি । তার পরিবর্তে মাইন শনাক্তকরনের কাজে নিযুক্ত করা হচ্ছে অপেক্ষাকৃত কম বয়সী ইঁদুর ।

মাগাওয়ার প্রশিক্ষক ম্যালেন জানিয়েছেন,”সাত বছর বয়সী আফ্রিকার এই ক্ষুদে দৈত্য ইঁদুর বার্ধক্যে পৌঁছনের সাথে সাথেই ধীরগতির হয়ে পড়েছিল । তাই তাকে সসম্মানে অবসর দেওয়া হচ্ছে ।” তিনি আরও বলেছেন,”মাগাওয়া যা কাজ করেছে তা কেউ ভাঙতে পারবে না। আমি গর্বিত ওর সাথে কাজ করতে পারার জন্য।”

অ্যাপোপোর কথায়,”মাগাওয়া মাত্র ২০ মিনিটের মধ্যে টেনিস কোর্টের আকারের ক্ষেত্রে অনুসন্ধান চালাতে সক্ষম । এই একই কাজ ধাতব ডিটেক্টর দিয়ে এক ব্যক্তির করতে ৪ থেকে ৫ দিন সময় লাগবে । এই সমস্ত প্রতিভার জন্য মাগাওয়াকে ‘হিরো র‍্যাটস’ বলা হয় ।

প্রসঙ্গত কম্বোডিয়া এমন এক দেশ যেখানে মাটির নিচে রয়ে গেছে প্রচুর ল্যান্ডমাইন ও অবিস্ফোরিত বোমা । যার জেরে এই অঞ্চলে প্রতি বছর প্রায় ৮ হাজার মানুষের মৃত্যু হয় । আর সেই ল্যান্ডমাইন খুঁজে বের করতে দক্ষ ছিল এই মাগাওয়া । তবু মাগাওয়াই প্রথম ইঁদুর যাকে এই কাজের জন্য স্বর্ণপদকে ভূষিত করা হয়েছে ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.