Shahid Dibas 2021: ২০২৪-এর লক্ষ্যে আরও একধাপ এগোলো মমতা ব্যানার্জির সরকার, দিল্লীতেও পালন করা হবে ২১ জুলাইয়ের শহীদ দিবস

নদীয়া নিউজ ২৪ ডিজিটাল: এবার দিল্লিতেও ২১ জুলাই পালন করবে তৃণমূল কংগ্রেস। একুশের ভোটে বাংলায় সাফল্যের পর যে তৃণমূলের পরবর্তী লক্ষ্য ২০২৪-এ দিল্লির মসনদ, তা ফের বুঝিয়ে দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ২১ জুলাই তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee) ভাষণ দিল্লি পর্যন্ত পৌঁছে দেওয়ারই পরিকল্পনা করেছে AITC। তৃণমূল সুপ্রিমো সিদ্ধান্ত নেন, এবার বাংলার পাশাপাশি দিল্লি থেকেও একুশে জুলাই পালন করা হবে। দিল্লিতে তৃণমূল দফতরে সাংসদরা পালন করবেন ২১ জুলাই।

এবছর ২৭ বছরে পা রাখতে চলেছে শহীদ দিবস।প্রতিবছর ধর্মতলায় শহিদ তর্পণ করে একুশে জুলাই পালন করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ২০২০ সালে করোনার প্রকোপে ভার্চুয়াল পালন করতে হয় শহীদ দিবস। ২০২১-এ তৃণমূলের বিশাল জয়ের পর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেছিলেন একুশের ২১ জুলাই বিজয় উৎসব পালন করা হবে। কিন্তু এবারও কাটা সেই করোনা। তাই এবছরও শহীদ দিবস ভার্চুয়ালি পালনের ঘোষণা করেন, তৃণমূলের (TMC) রাজ্যসভার মুখ্য সচেতক সুখেন্দুশেখর রায় ।তিনি আরও বলেন,’ দেশের যেখানে যেখানে তৃণমূল কংগ্রেসের সদস্য-সমর্থক রয়েছেন, সেখানেই তৃণমূল নেত্রীর ভাষণ শোনা যাবে। দিল্লির তৃণমূলের দপ্তরেও একইভাবে পালিত হবে ২১ জুলাই। আসলে সেই সময় সংসদের বাদল অধিবেশন চলবে। ফলে লোকসভা ও রাজ্যসভার বেশ কয়েকজন তৃণমূল সাংসদ দিল্লিতেই থাকবেন। তাই দিল্লির তৃণমূল দপ্তরে একটি LED স্ক্রিন লাগানোর পরিকল্পনা রয়েছে। সাংসদরা যাতে শহিদ দিবসে শামিল হতে পারেন, সেই কারণেই এই পরিকল্পনা।”

উল্লেখ্য, ১৯৯৩-এ ‘নো আইডেন্টিটি, নো ভোট’ স্লোগানকে হাতিয়ার করে রাইটার্স অভিযান করেছিল যুব কংগ্রেস। তৎকালীন যুব কংগ্রেস নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে সেই অভিযানে পুলিশের গুলিতে প্রাণ হারান ১৩ জন তরতাজা যুবক। সেই শহিদদের স্মৃতি তর্পণে প্রতিবছর ২১ জুলাই পালন করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.