Mimi Chakraborty On Fake Vaccination: কসবায় ভুয়ো ভ্যাকসিন কাণ্ডে মিমির ভিডিও বার্তা,”আমি ভালো আছি,আপনারা কেউ অযথা প্যানিক করবেন না।”

নদীয়া নিউজ ২৪ ডিজিটাল: কসবায় রমরমিয়ে চলছিল ভুয়ো টিকাকরণ। ওই কেন্দ্রেই টিকা নিয়েছিলেন বহু মানুষ। এমনকি খোদ অভিনেত্রী সাংসদ মিমি চক্রবর্তীও ওই জালিয়াতির খপ্পরে পড়েন। মঙ্গলবার এই ঘটনা সামনে আসতেই রীতিমতো হৈচৈ পরে গেছে চারিদিকে। গ্রেফতার করা হয়েছে ভ্যাকসিন কাণ্ডে অভিযুক্ত ভুয়ো আইপিএস দেবাঞ্জন দেবকে। জানা যায় ওই কেন্দ্রে যারা যারা ভ্যাকসিন নিয়েছিলেন তাদের কাউকেই কোনো প্রকার মেসেজ দেওয়া হয়নি। এমনকি তাজ্জবের বিষয় জানা গেছে ,আদতে সমস্ত মানুষকে দেওয়াই হয়নি করোনার ভ্যাকসিন।

বৃহস্পতিবার নিজের সোশ্যাল পেজে একটি ভিডিয়ো বার্তা শেয়ার করেছেন মিমি চক্রবর্তী। যারা তাঁর জন্য উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন এবং সেই টিকা কেন্দ্র থেকে যারা ভুয়ো ভ্যাকসিন নিয়েছেন, সেই সমস্ত মানুষের জন্য ওই ভিডিও বার্তায় মিমি বলেন, “কালকের ঘটনার পর থেকে আমার কাছে প্রচুর ফোন, মেসেজ এসেছে। সকলে জানতে চাইছেন আমি কেমন আছি। তাঁদের সকলের উদ্দেশ্যে আমি জানাতে চাই যে, আমি সুস্থ আছি। আপনারা যারা আমার সাথে ওই ভ্যাক্সিনেশন ক্যাম্পে উপস্থিত ছিলেন তাঁদের সকলকে বলতে চাই, আমরা সকলে এই পরিস্থিতির স্বীকার হয়েছি, আমাদের হাতে এখন কিছু নেই। যদি আমি সুস্থ থাকি, আমার বিশ্বাস আপনারও সুস্থ থাকবেন। শুধু প্যানিক করবেন না।”

ভিডিও বার্তায় মিমি আরও বলেন, “ওই ভ্যাকসিনের নমুনা ল্যাবে পাঠানো হয়েছে। আমরা ৪-৫ দিনের মধ্যেই জেনে যাব, ওতে আসলে কী ছিল? তবে আমি যতটুকু কথা বলে জেনেছি ওতে ক্ষতিকারক কিছু ছিল না, তবে হ্যাঁ, ওতে ভ্যাকসিনও ছিল না।”একইসঙ্গে মিমি সকলকে সাবধান করে বলেছেন, যারা দেবাঞ্জন দেবের অন্য কোনও টিকা কেন্দ্র থেকে ভ্যাকসিন নিয়েছেন, কিংবা এরকম কোনও ঘটনার স্বীকার হয়েছেন, তাঁদের সকলকে কেএমসি-র দপ্তরে গিয়ে সম্পূর্ণ ঘটনা জানতে অনুরোধ করছি।

উল্লেখ্য ,কলকাতা পুরসভা জানতে পেরেছেন ওই টিকাকরণ কেন্দ্র থেকে মোট ১১০ জন টিকা নিয়েছিলেন। তার মধ্যে ৭০ জনের রিপোর্ট কলকাতা পুরসভার হাতে এসেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.