‘সব মেনে নেব কিন্তু ধর্মের অপমান মানব না’- বাংলাদেশের হিংসায় উষ্কানীমূলক মন্তব্যের জেরে আব্বাস সিদ্দিকীকে গ্রেফতারের আবেদন বাংলাপক্ষের

নদীয়া নিউজ ২৪ ডিজিটাল: সাম্প্রদায়িক হিংসায় উস্কানি দেওয়ার অভিযোগ তুলে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে আব্বাস সিদ্দিকীকে গ্রেপ্তারের আবেদন জানিয়েছে বাংলাপক্ষ। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয় ভাইজান আব্বাস সিদ্দিকির সাম্প্রদায়িক উস্কানিমূলক একটি ভিডিয়ো। তারপরই আব্বাসকে নিয়ে শুরু হয় জোর বিতর্ক।

বাংলাদেশে কুমিল্লার একটি পুজো প্যাণ্ডেলকে কেন্দ্র করে   কোরানের অবমাননা করা হয়েছে বলে অভিযোগ ওঠে। তারপরই ওই পুজো মণ্ডপে ঢুকে একদল দুষ্কৃতী হামলা চালায়। তারপর হামলা চালানো হয় বাংলাদেশের ইসকনেও। হিংসায় অসংখ্য হিন্দু গুরুতর জখম এবং প্রাণ হারিয়েছেন। এই পরিস্থিতিতে ‘প্রতিবেশী রাষ্ট্রের বিষয়কে টেনে এনে এই বাংলার মাটিকেও অশান্ত করার অপচেষ্টা হচ্ছে’ বলে ভাইজান আব্বাস সিদ্দিকির বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ তুলেছে বাংলাপক্ষ।

এমনকি জানা গিয়েছে, পীরজাদা আব্বাস সিদ্দিকির বিরুদ্ধে কলকাতা পুলিশের কমিশনারের কাছে অভিযোগ দায়ের করেন বিজেপি নেতা তথা আইনজীবী তরুণজ্যোতি তিওয়ারি।

ভাইরাল হওয়া ভিডিয়োতে ভাইজানকে বলতে শোনা যায়, ‘সব মেনে নেব কিন্তু ধর্মের অপমান মানব না।’ এছাড়া বেশ কিছু সাম্প্রদায়িক বক্তব্য শোনা যায় আব্বাস সিদ্দিকির সেই বক্তব্যে। যা ভাইরাল হতেই অস্বস্তিতে পড়ে সংযুক্তমোর্চায় আইএসএফ-এর জোটসঙ্গী সিমিএম ও কংগ্রেসও। এনিয়ে সিপিএম (CPM)পলিটব্যুরো সদস্য সুজন চক্রবর্তী এবং প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীররঞ্জন চৌধুরী আলাদাভাবে নিজেদের প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন। ড্যামেজ কন্ট্রোলে নেমে দাদার উলটোপথে হেঁটেছেন আইএসএফ বিধায়ক তথা আব্বাসের ভাই নওশাদ সিদ্দিকি। তিনি দোষীদের শাস্তির দাবিতে চিঠি পাঠিয়েছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে (Sheikh Hasina)।

Leave a Reply

Your email address will not be published.