Bhabanipur by-poll: বিজেপি প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন জমা দিলেন প্রিয়াঙ্কা টিবরেওয়াল, পাশে ছিলেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী

নদীয়া নিউজ ২৪ ডিজিটাল: উপনির্বাচনের ভরকেন্দ্র ভবানীপুর। সেই উপনির্বাচনকে যে হালকা ভাবে নিচ্ছে না বিজেপি,তা আগেই জানা হয়ে গেছিল। সোমবার এই কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী প্রিয়াঙ্কা টিবরেওয়াল (Priyanka Tibrewal) মনোনয়ন পত্র জমা দিলেন। আলিপুর সার্ভে বিল্ডিংয়ে মনোনয়ন জমা দেওয়ার সময় পাশে ছিলেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী, অর্জুন সিং, দ্বীনেশ ত্রিবেদী সহ বিজেপির একাধিক প্রথম সারির নেতা। যা মূলত বোঝায়,’ মমতার বিরুদ্ধে শেষ পর্যন্ত লড়াই করতে চায় বিজেপি।’

এদিন প্রিয়াঙ্কার মনোনয়ন জমা দেওয়ার পরই শুভেন্দু বলেন,’এই লড়াই প্রিয়াঙ্কার একার নয়। সমগ্র রাজ্যবাসীর। এই লড়াই ক্ষমতা দখলের লড়াই নয়। গণতন্ত্র রক্ষার লড়াই।’

এরপরই শুভেন্দু বলেন,’ভারতবর্ষের যাঁরা অখণ্ড ভারতের স্বপ্ন দেখেন, এক দেশ শ্রেষ্ঠ দেশের স্বপ্ন দেখেন, ভারত মাতার বন্দন করেন তাঁদের সকলের লড়াই। কারণ পশ্চিমবাংলায় নির্বাচন পরবর্তী সময়ে যে ভাবে ৫৫ জন ভারতীয় জনতা পার্টির কর্মী সমর্থক থেকে ভোটাররা প্রাণ দিয়েছেন, মহিলাদের ইজ্জত সম্ভ্রম লুন্ঠিত হয়েছে, জাতীয় মানবাধিকার কমিশন কোর্টেও জানিয়েছে এ রাজ্যে আইনের শাসন নেই, শাসকদলের আইন চলছে। তাই গণতন্ত্রকে বাঁচানোর এই লড়াইয়ে ভবানীপুরের ভোটাররা বাড়িতে বসে থাকবেন না।”

মনোনয়ন জমা দেওয়ার আগে প্রিয়াঙ্কা একটি মন্দিরে পুজো করেন। সেখানে ঢাক ঢোল বাজিয়ে উৎসব মুখর পরিবেশ তৈরি করেছিল বিজেপি। ধুনুচি হাতে নাচেন অনেকে। তারপরেই তিনি সুর চড়িয়ে বলেন, ‘‌খেলার শেষ দেখে ছাড়ব।’‌ অর্থাৎ তিনি যে লড়াই করতে প্রস্তুত তা স্পষ্ট ভাষায বুঝিয়ে দেন তিনি।

উল্লেখ্য, একুশের নির্বাচনের নিরিখে ভবানীপুরের অন্তর্গত ৮টি ওয়ার্ডের মধ্যে ৬টিতে পিছিয়ে ছিল বিজেপি। অবাঙালি অধ্যুষিত দুটি ওয়ার্ডে এগিয়ে ছিল তারা। এবারও সেই দুটি ওয়ার্ডের উপরই বাড়তি জোর দিচ্ছেন বিজেপি নেতারা। 

Leave a Reply

Your email address will not be published.