নদিয়ার হাঁসখালি তে শুট আউট,আক্রান্ত তৃনমুল পঞ্চায়েত সদস্যার স্বামী

নদিয়ার হাঁসখালি তে শুট আউট। বুধবার রাত সাড়ে আটটা নাগাদ বাজার থেকে বাড়ি ফেরার পথে সহদেবের উপর হামলা চালানো হয়। স্থানীয় বগুলা স্কুলে মাঠে দুষ্কৃতী হামলার কবলে পড়েন তিনি। গুলি লাগে সহদেব মন্ডলের মাথায়। প্রথমে সহদেবকে স্থানীয় বগুলা গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় সেখান থেকে তাঁকে রেফা করা হয় কৃষ্ণনগরে। তারপর সেখানকার চিকিৎসকরা আক্রান্ত তৃণমূল নেতাকে কলকাতায় রেফার করে দেন।

আক্রান্ত সহদেব মণ্ডলের স্ত্রী পঞ্চায়েত সদস্যা বলেছেন, “আমার স্বামীকে পিছন থেকে এসে গুলি করেছে। কারা এই কাজ করেছে চিনতে পারেনি।” সহদেব মণ্ডল পেশায় শিক্ষক বলে জানা গিয়েছে। তিনি তৃণমূলের সঙ্গে যুক্তও ছিলেন। এদিন সন্ধেবেলায় তিনি বাড়ি থেকে বের হন। বাড়ির কাছেই স্কুল মাঠে দাঁড়িয়েছিলেন। সেই সময় দুষ্কৃতীরা পিছন থেকে গুলি করে। এই ঘটনায় ঘটনায় অভিযোগের আঙুল উঠেছে বিজেপির দিকে। যদিও অভিযোগ অস্বীকার করেছে গেরুয়া শিবির।

উল্লেখ্য, কয়েক বছর আগে এই নদিয়াতেই তৃণমূল বিধায়ক সত্যজিৎ বিশ্বাসকে গুলি করে খুন করা হয়েছিল। তারপর আবার তৃণমূল নেতার গুলিবিদ্ধ হওয়ার ঘটনায় স্বভাবতই চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়। এদিকে রামপুরহাট হত্য়াকান্ড নিয়ে ইতিমধ্যেই রাজ্য শোরগোল পড়ে গিয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.