শান্তির বার্তা দিয়েও আফগানিস্তানে ভারতীয় দূতাবাসে তালিবানদের তান্ডব, চুরি গিয়েছে গুরুত্বপূর্ণ নথি

নদীয়া নিউজ ২৪ ডিজিটাল: আশরাফ ঘানির সরকারের বিদায়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও আফগানিস্তানের চলমান পরিস্থিতিতে সবচেয়ে উদ্বিগ্ন দেশগুলোর মধ্যে একটি ছিলো ভারত। তালেবান ক্ষমতার কেন্দ্রে চলে আসার পর দুইদিনের মধ্যেই ভারতের সঙ্গে বাণিজ্যিক সম্পর্ক ছিন্ন করেছে আফগানিস্তান। আফগানিস্তানে সরকার বদলের পর আতঙ্কে ছিল ভারত। শেষমেশ হলোও তাই। কন্দহর ও হেরাটে ভারতীয় দূতাবাসে লুঠপাট চালাল তালিবান। এই দুই শহরের দূতাবাস থেকে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ নথি নিয়ে যাওয়া হয়েছে বলে কেন্দ্রীয় সরকার সূত্রে জানানো হয়েছে।

এদিকে, তল্লাশি চালানোর পাশাপাশি ভারতীয় ওই দুই দূতাবাসের বাইরে রাখা গাড়িগুলোও দখলে নিয়েছে তালেবান সদস্যরা। এছাড়া রাজধানী কাবুলে বাড়ি বাড়ি তল্লাশি অভিযানে করছে সংগঠনটি। সেখানে মূলত আফগান গোয়েন্দা সংস্থা এনডিএস’র কর্মীদের খোঁজ করেছে তারা।

আফগানিস্তানে ভারতের চারটি দূতাবাস রয়েছে। কাবুল ছাড়াও কন্দহর, হেরাট ও মাজার-ই-শরিফে ভারতের দূতাবাসগুলি কাজ করে। তালিবান ক্ষমতা দখল করার আগে থেকেই অশান্তির আঁচ পেয়ে এই দূতাবাসগুলি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল। তালিবান ক্ষমতা দখল করার পর মঙ্গলবার কাবুল থেকে ১৭০ জনকে উদ্ধার করে ভারত। উদ্ধার করা হয় ভারতের রাষ্ট্রদূত, দূতাবাসের কর্মী ও সেই সব ভারতীয়দের, যাঁরা আফগানিস্তানের বিভিন্ন অংশে ছড়িয়ে ছিটিয়ে ছিলেন। উদ্ধার করা হয় ভারতীয় সাংবাদিকদেরও। যদিও এখনও আফগানিস্তানে বেশ কয়েকজন ভারতীয় আটকে রয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.