নিখোঁজ থাকা এক দিনমজুরের রক্তাক্ত দেহ উদ্ধার হল নদীয়ার নবদ্বীপে

নবদ্বীপ,নদীয়া: নিখোঁজ থাকা এক দিনমজুরের রক্তাক্ত দেহ উদ্ধার হল নদীয়ার নবদ্বীপে। সোমবার বিকেলে নবদ্বীপ থানার বাবলারি গ্রাম পঞ্চায়েতের রামচন্দ্রপুর এলাকায় খেলতে গিয়ে পথের ধারে জঙ্গলের মধ্যে রক্তাক্ত অবস্থায় ওই ব্যক্তিকে পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয় এক নাবালক। এরপর বিষয়টি জানানো হয় ওই এলাকার বাসিন্দা কর্মসূত্রে নবদ্বীপ থানায় গ্রামীণ পুলিশে কর্মরত সাক্ষী ঘোষ নামের এক যুবককে।

সাক্ষী বাবু মারফত খবর পেয়ে তড়িঘড়ি ঘটনাস্থলে পৌঁছে ওই ব্যক্তিকে উদ্ধার করে নবদ্বীপ স্টেট জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যায় নবদ্বীপ থানার পুলিশ। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসার পর তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন হাসপাতালের চিকিৎসকেরা। মৃত ওই ব্যক্তির নাম হারান সর্দার বয়স আনুমানিক ৫৫ বছর,বাড়ি পার্শ্ববর্তী জাহান্নগর গ্রাম পঞ্চায়েতের মাধাইপুর সর্দারপাড়া এলাকায়।

জানা যায়, পেশায় দিনমজুর হারান সর্দার রবিবার সকালে কাজে যাওয়ার নাম করে বাড়ি থেকে বেরিয়ে রাতে আর বাড়ি ফেরেননি। এরপর বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুঁজি করার পরেও তাঁর কোন সন্ধান না পেয়ে নবদ্বীপ থানা ও পূর্বস্থলী থানার পুলিশের দ্বারস্থ হন নিখোঁজ হারান বাবুর পরিবারের লোকজন। সোমবার বিকেলে রামচন্দ্রপুর এলাকায় পথের ধারে জঙ্গল থেকে রক্তাক্ত অবস্থায় তাঁর নিথর দেহ উদ্ধার হলে স্বাভাবিক ভাবেই তীব্র চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয় রামচন্দ্রপুর এলাকায়। মৃত হারান সর্দারের মুখমন্ডলে আঘাতের চিহ্ন থাকায় রাত্রে নিয়ন্ত্রনহীন কোন গাড়ির ধাক্কায় পথের পাশে জঙ্গলে পড়ে গিয়ে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণের ফলে তাঁর মৃত্যু হতে পারে বলে তদন্তে প্রাথমিক ধারণা পুলিশের। হারান সর্দারের মৃতদেহটি উদ্ধার করার পাশাপাশি সম্পূর্ণ ঘটনাটির তদন্ত শুরু করেছে নবদ্বীপ থানার পুলিশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.