CoronaVirus: দেশে করোনার দৈনিক সংক্রমন ১ লাখ ৭৯ হাজার ৭২৩, দেশজুড়ে শুরু করোনার বুস্টার ডোজ

সোমবার থেকেই দেশজুড়ে শুরু হয়েছে করোনার বুস্টার ডোজ। এর মাঝেই করোনার তৃতীয় ঢেউয়ের লাগামছাড়া সংক্রমন। করোনার সাথে পাল্লা দিয়ে বেড়ে চলেছে ওমিক্রন ভারিয়েন্ট। সোমবার কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের রিপোর্ট অনুযায়ী, বিগত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা এক লাখ ৭৯ হাজার ৭২৩ জন। রবিবারের তুলনায় দৈনিক সংক্রমণ বৃদ্ধির হার ১২.৬ শতাংশ। 

এদিকে গত ২৪ ঘন্টায় দেশে করোনার কবলে মারা গেছেন ১৪৬ জন। সংক্রমনের পাশাপাশি উদ্বেগ বাড়াচ্ছে করোনার সক্রিয় রোগীর সংখ্যা। স্বাস্থ্যমন্ত্রকের রিপোর্ট অনুযায়ী, বর্তমানে দেশে করোনায় চিকিৎসাধীন রোগী ৭ লক্ষ ২৩ হাজার ৬১৯। পটিজিভিটি রেট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৩.২৯ শতাংশ।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনামুক্ত হয়েছেন ৪৬ হাজার ৫৬৯ জন। দেশে সোমবার পর্যন্ত ওমিক্রন আক্রান্তের সংখ্যা ৪ হাজার ৩৩।

স্বাস্থ্যমন্ত্রকের পরিসংখ্যান বলছে, পাঁচটি রাজ্যের লাগামছাড়া সংক্রমণের কারণেই দেশের করোনা গ্রাফ এতটা লাফিয়ে বেড়েছে। এই পাঁচ রাজ্যের শীর্ষে রয়েছে মহারাষ্ট্র।তারপরই রয়েছে পশ্চিমবঙ্গ। মহারাষ্ট্রের দৈনিক সংক্রমণ ৪৪ হাজারের বেশি, আর বাংলায় তা ২৪ হাজার ছাড়িয়েছে। এছাড়া সংক্রমণের তালিকায় থাকা অন্যান্য রাজ্যগুলি – দিল্লি, তামিলনাড়ু, কর্ণাটক।

উল্লেখ্য, আজ থেকেই দেশজুড়ে শুরু হয়েছে করোনার বুস্টার ডোজ প্রদান। করোনা টিকার দুটো ডোজ নেওয়া থাকলে, তার ৯ মাস নেওয়া যাবে এই বুস্টার ডোজ। কেউ করোনা আক্রান্ত হলে রোগমুক্তির ৩ মাস না হওয়া পর্যন্ত তাঁরা প্রিকশনারি ডোজ পাবেন না। পশ্চিমবঙ্গে সাড়ে ৭ লক্ষ স্বাস্থ্যকর্মী, সাড়ে ১০ লক্ষ ফ্রন্টলাইন ওয়ার্কার এবং ২২ লক্ষ কোমর্বিডিটি থাকা ষাটোর্ধ্ব ব্যক্তি এই ‘প্রিকশন ডোজ’ (Precaution Dose) বা ‘বুস্টার ডোজ’ (Booster Dose) পাবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.