Coronavirus: রাজ্যে দৈনিক করোনা আক্রান্ত ১৯ হাজার ছুঁইছুঁই!নদিয়ায় আক্রান্ত বেড়ে ৫১২

নদীয়া নিউজ ২৪ ডিজিটাল: করোনা আক্রান্তের নিরিখে দেশে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে পশ্চিমবঙ্গ। দেশের পাশাপাশি রাজ্যেও ঊর্ধমুখী করোনার দৈনিক সংক্রমন।বড়দিন,বাংলা নববর্ষের পর থেকেই হু হু করে বাড়ছে করোনার দৈনিক সংক্রমন। রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের দেওয়া শনিবারের পরিসংখ্যান অনুযায়ী গতকালের তুলনায় আরও খানিকটা বাড়লো সংক্রমন। রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের পরিসংখ্যান অনুযায়ী গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ১৮ হাজার ৮০২ জন। যা নিয়ে এপর্যন্ত মোট ১৭ লাখ ৩০ হাজার ৭৫৯ জন মারণ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।

এদিকে রাজ্যে গত ২৪ ঘন্টায় করোনার কবলে পড়ে প্রাণ হারিয়েছেন ১৯ জন। এনিয়ে রাজ্যে মোট করোনায় মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো ১৯ হাজার ৮৮৩ জন। রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে এই মুহূর্তে রাজ্যে সক্রিয় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৬২ হাজার ৫৫। রাজ্যের পজিটিভিটির হার ২৯.৬০ শতাংশ।

স্বাস্থ্য দফতরের রিপোর্ট অনুযায়ী, এই মুহূর্তে রাজ্যজুড়ে করোনাকে হারিয়ে সুস্থ হয়েছেন ১৬ লাখ ৪৮ হাজার ৮২১ জন। যার মধ্যে গতকাল সুস্থ হয়েছেন ৮ হাজার ১১২ জন।

শনিবারের রিপোর্ট অনুযায়ী, রাজ্যে মোট আক্রান্তের মধ্যে কলকাতায় কোভিড পজিটিভ হয়েছেন ৭ হাজার ৩৩৭ জন। উত্তর ২৪ পরগনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩ হাজার ২৮৬। গত ২৪ ঘণ্টায় হাওড়ায় করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ১ হাজার ৪৮৩ জন। দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ৮৭৮ জন আক্রান্ত হয়েছেন। হুগলিতে ৮৮১ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। পূর্ব ও পশ্চিম বর্ধমানে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন যথাক্রমে ৫২৩ এবং ১০০৬ জন। পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুরে আক্রান্তের সংখ্যা যথাক্রমে ১৫৩ এবং ২৪১। ঝাড়গ্রামে আক্রান্তের সংখ্যা ১১৩। বাঁকুড়ায় করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ২১৪ জন। পুরুলিয়ায় আক্রান্তের সংখ্যা ২৪৫।  বীরভূমে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৬২৯ জন। নদিয়ায় আক্রান্তের সংখ্যা ৫১২ জন। মুর্শিদাবাদে কোভিড আক্রান্ত হয়েছেন ২৭৫ জন। মালদায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৩৬৯। দক্ষিণ দিনাজপুরে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৭৩। উত্তর দিনাজপুরে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ১৪৭। জলপাইগুড়িতে করোনা করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১২৫। কলিংপং-এ করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১৩। দার্জিলিং-এ করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১৭৯। কোচবিহারে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৫৬। আলিপুরদুয়ারে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ২৪ জন।

উল্লেখ্য রাজ্যের কোভিড বিধিতে কিছুটা রদবদল এনেছে রাজ্য। ৫০ শতাংশ ক্রেতা নিয়ে সেলুন, বিউটি পার্লার খোলার ছাড়পত্র দিয়েছে নবান্ন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.