Khela Diwas: ১৬ আগস্টকেই কেন বেছে নেওয়া হয়েছে ‘খেলা দিবস’ এর জন্য? নবান্নে বিস্তারিত জানালেন মুখ্যমন্ত্রী নিজেই

নদীয়া নিউজ ২৪ ডিজিটাল: বুধবার ২১শে জুলাই তৃণমূলের তরফে ‘শহীদ দিবস’ উদযাপনকালীন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কেন্দ্রের একাধিক ইস্যুতে সরব হয়েছিলেন। সেইসঙ্গে এদিন মুখ্যমন্ত্রী ঘোষণা করেন আগামী ১৬ই আগস্ট তৃণমূলের খেলা হবে দিবস পালন করা হবে। কিন্তু এই দিনটিকেই বাছলেন মুখ্যমন্ত্রী? বৃহস্পতিবার নবান্নে সাংবাদিক বৈঠকে ১৬ আগস্ট এই দিন পালনের কারণ জানালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজেই।

এদিন মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, প্রতি বছর ১৬ আগস্ট রাজ্য জুড়ে ‘খেলা হবে’ দিবস পালিত হবে। রাজ্যের ক্লাবগুলিকে দেওয়া হবে ১০টি করে ‘জয়ী’ বল। যা তৈরি হয়েছে বাংলাতেই। ইতিমধ্যে ৫০ হাজার বল তৈরিও করা হয়ে গিয়েছে বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী। এরপর এই দিনটির ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে তিনি জানান, ১৯৮০ সালে ইডেন গার্ডেন্সে ঘটে যাওয়া মর্মান্তিক ঘটনার কথা মাথায় রেখেই এই খেলা হবে দিবস পালিত হবে। এরপরই তাঁর সংযোজন, “১৬ আগস্ট স্বাধীনতা দিবসের ঠিক পরদিনই পালিত হবে ‘খেলা হবে’ দিবস। দেশের স্বাধীনতা আজ বিপন্ন। দেশের মানুষের কণ্ঠরোধ করা হচ্ছে। দেশ যাতে এই সমস্ত কিছু থেকে মুক্তি পায়। মানুষের স্বাধীনতা যাতে অক্ষুণ্ন থাকে। সেজন্যই আয়োজিত হবে এই ‘খেলা হবে’ দিবস।”

এদিনের সাংবাদিক বৈঠকে মমতা ব্যানার্জি আরও বলেন,’ওই দিন ১ লক্ষ ফুটবল রাজ্যের একাধিক ক্লাব, সংগঠন, ক্রীড়া প্রতিষ্ঠানকে দেওয়া হবে। স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মহিলাদের হাতে তৈরি রাজ্য সরকারের ‘জয়ী’ বল বিতরণ করা হবে। রাজ্যের নবীন প্রজন্ম যাতে খেলাধুলায় এগিয়ে যেতে পারে সেই জন্য ‘খেলা হবে’ দিবস পালন করবে রাজ্য সরকার।’

উল্লেখ্য, এই ‘খেলা হবে’ স্লোগানে ভর করেই তৃতীয় বার নবান্নের গদিতে বসেছেন মমতা। এবার রাজ্যজুড়ে ‘খেলা হবে’ দিবস পালন করে ঐক্য-সংহতির বন্ধনে রাজ্যকে বাঁধতে চাইছেন মুখ্যমন্ত্রী।

Leave a Reply

Your email address will not be published.