করোনায় অনাথ হওয়া শিশুদের সাহায্যে কিছুটা সময় চেয়ে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ কেন্দ্র, মিলেছে সম্মতি B

নদীয়া নিউজ ২৪ ডিজিটাল: করোনার অতিমারীতে বাবা মা হারিয়েছেন অনেকেই । একপ্রকার অনাথ হয়ে গেছে তারা । কিছুদিন আগেই প্রধানমন্ত্রী ঘোষণা করেছিলেন,করোনায় অনাথ হওয়া শিশুদের দায়িত্ব নেবে কেন্দ্র । পিএম কেয়ার্স তহবিলের অর্থ দিয়ে করা হবে তাদের সাহায্য । অনাথ শিশুদের শিক্ষা ও ভরণপোষণের দায়িত্ব নেবে কেন্দ্র ।

এই প্রসঙ্গে কেন্দ্র জানিয়েছে ,এই কাজ করতে কিছুটা সময় লাগবে । সুপ্রিম কোর্টের থেকে সম্মতিও নিয়েছে কেন্দ্র । জাতীয় শিশু সুরক্ষা ও অধিকার কমিশনের তরফে জানান হয় যে দিল্লি এবং পশ্চিমবঙ্গ, শিশুদের তথ্য যথাযথভাবে দিচ্ছে না। করোনাভাইরাসে অনাথ হওয়া শিশুদের তথ্য না পেলে কেন্দ্রের তরফে কাজ এগিয়ে নিয়ে যাওয়া তাই সম্ভব হচ্ছে না। 

জাতীয় শিশু সুরক্ষা ও অধিকার কমিশনের তরফে দাবি, পিএম কেয়ার্স ফর চিলড্রেন’ প্রকল্পকে বাস্তবায়ন করতে কেন্দ্র-রাজ্যকে একযোগে কাজ করতে হবে। কিন্তু সেই কাজে ঠিক মতো হাত মেলাচ্ছে না রাজ্যগুলি । এমনকি কেন্দ্রের ‘বাল স্বরাজ’ যোজনায় শিশুদের ঠিকঠাক নাম পাঠাচ্ছে না দিল্লি ও পশ্চিমবঙ্গ । এই অবস্থায় সুপ্রিম কোর্ট দিল্লি সহ পশ্চিমবঙ্গকে নির্দেশ দেয় যে যুদ্ধকালীন তৎপরতায় এই কাজ করতে হবে।

প্রসঙ্গত, কেন্দ্রের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়েছিল যে কোভিডের জেরে যে সব শিশু অনাথ হয়েছে, তাদের বয়স ১৮ হলেই পরের পাঁচ বছর পর্যন্ত তারা মাসিক ভাতা পাবে। বয়স ২৩ হলেই তাদের ১০ লক্ষ টাকা দেওয়া হবে। আরও জানানো হয়, ১৮ বছর বয়স পর্যন্ত তারা পাঁচ লক্ষ টাকার স্বাস্থ্য বিমার সুবিধা পাবে কেন্দ্রের আয়ুষ্মাণ ভারত প্রকল্পের আওতায়। বিমার প্রিমিয়ামের টাকাও দেবে কেন্দ্র। তাদের লেখাপড়ার খরচের টাকাও দেবে সরকার।

Leave a Reply

Your email address will not be published.